নেইল পলিশ লাগান নিখুত ভাবে

* যেমন তেমন ভাবে নখে কখনই নেইল পলিশ লাগাবেন না।  কারন নেইল পলিশ ঠিকমত লাগানোর মাধ্যমে যে কোনো ধরনের সাধারণ নখকেও অসাধারণ সৌন্দর্য্যে মেলে ধরা যায়। প্রথমে নিচের উপাদানগুলো সংগ্রহ করে নিন।

–    হেয়ার ড্রায়ার,
–    নেইল কাটার,
–    ছোট ট্রে ( যাতে হাতে সাবান লাগিয়ে সেটা ধুয়ে ফেলার মতো বড়),
–    ডিস ওয়াশিং ডিটারজেন্ট অথবা ত্বকের জন্য নরম কোনো সাবান,
–    স্পার্কিং লিকুইড,
–    কুসুম গরম পানি এক বাটি,
–    তিনটি তোয়ালে,
–    এ্যালোভেরা কোকোয়া বাটার বা এই ধরনের কোনো ত্বকের ময়শ্চারাইজার জনিত প্রয়োজনীয় লোশন,
–    ক্লিয়ার বেজ কোট নেইল পলিশ।

উক্ত জিনিসগুলো জোগাড় হলে নখের পরিচর্যার জন্য নিচের কাজগুলো ধারাবাহিকভাবে করুন।

১.    প্রথমে নেইল কাটারের দিয়ে নখগুলো সুন্দর করে কাটুন। কিংবা নেইল কাটারের সাথে লাগানো ফাইল দিয়ে ঘসে নখের আকার ঠিক করুন।
২.    এবার আপনার হাতের নখগুলো সাবান দিয়ে ভালো করে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন। এরপর গরম পানিতে ডুবিয়ে নখগুলোকে আরেক বার পরিষ্কার করুন।
৩.    এবার একটি তোয়ালে দিয়ে নখগুলো ভালো করে মুছে ফেলুন। তারপর হেয়ার ড্রায়ার একেবারে লো ক্যাটাগরীতে দিয়ে ধীরে ধীরে নখগুলো শুকিয়ে নিন।
৪.    এবার একটি শক্ত জায়গায় বসুন। উক্ত হাত বা নখ দিয়ে কোনো কিছু স্পর্শ করবেন না বা ধরবেন না
৫.    কোনো কিছু স্পর্শ না করে এই অবস্থায় পাঁচ মিনিট থাকুন।
৬.    এবার সুন্দর করে নেইল পলিশ লাগিয়ে নিন ব্রাশ দিয়ে।
৭.    পলিশের কাজে যেকোনো এষড়ংংু নেইল পলিশ ব্যবহার করতে পারেন। পলিশ করা শেষ হলে এই অবস্থায় দশ মিনিট চুপচাপ থাকুন। এরপর হাত দিয়ে স্বাভাবিক কাজর্কম করতে পারেন।

নেইল পলিশ তোলার ক্ষেত্রে:

হাত পায়ের নখের নেইল পলিশ তোলার সময় অবশ্যই রিমোভার ব্যবহার করবেন। কখনই ছুরি বা নষধফব ব্যবহার করবেন না। এতে নখের ওপরের নিকেল উঠে গিয়ে নখ এবড়ো থেবড়ো হবে এবং সেই সাথে স্বাভাবিক সৌন্দর্য্য হারিয়ে ফেলে মরা মরা দেখাবে।
প্রতিবার নেইল পলিশ তোলার পর অবশ্যই প্রতিটি নখের উপরে এবং গোড়ায় ভালো কোম্পানীর কোল্ড ক্রীম লাগাবেন। এতে আপনার হাতের নখগুলোর উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পাবে।

Updated: May 29, 2015 — 1:57 pm
bangladeshi women's lifestyle © 2015-2016, ই-মেইলঃ bdnari.com@gmail.com Serverdokan TEAM