নেক সন্তান লাভ ও স্ত্রী সহবাসের গুরুত্বপূর্ণ ১২টি সুন্নাত!

nek sontanএকটা নেক সন্তান দশটা বিপথগামী সন্তানের চেয়ে উত্তম । সকল দম্পতি তাদের দাম্পত্ত জীবনে নেক সন্তান লাভের কামনা করে। নেক সন্তান লাভে স্ত্রী সহবাস একটা গুরুত্বপুর্ণ বিষয়। নেক সন্তান লাভের উপায় কি? নেক সন্তান লাভ ও স্ত্রী সহবাসের গুরুত্বপূর্ণ ১২টি সুন্নাত এখানে তুলে ধরা হল…

১। নেক সন্তান লাভে স্বামী-স্ত্রী উভয়ই পাক পবিত্র অবস্থায় সহবাস করতে হবে ।

২। অবশ্যই “বিসমিল্লাহ” বলে সহবাস শুরু করা। ভুলে গেলে যখন বীর্যপাতের পূর্বে মনে মনে পড়ে নেবে। সেক্সের সময় এই ভুলগুলো কখনো করবেন না ।

৩। মনে রাখবেন কোন শিশু বা পশুর সামনে সংগমে রত হবে না

৪। সহবাসের সময় ঘরের বা সহবাসের স্থান পরিষ্কার রাখুন। দুর্গন্ধ জাতীয় জিনিস পরিহার করা উচিত। উল্লেখ্য যে , ধুমপান কিংবা অপরিচ্ছন্ন থাকার কারণে দুর্গন্ধ সৃষ্টি হয়। আর এতে কামভাব কমে যায়। আগ্রহের স্থান দখল করে নেয় বিতৃষ্ণা।

৫। সম্ভব হলে সহবাসের আগে সুগন্ধি ব্যবহার করুন । সহবাসের পূর্বে সুগন্ধি ব্যবহার করাও আল্লাহর রাসুলের [সা.] সুন্নত।

৬। অবশ্যই পর্দা ঘেরা স্থানে সংগম করবে। কোন মতেই খোলা জায়গা যেমন বাড়ির ছাঁদ, মাঠে যৌনমিলন করবেন না ।

৭। কোনোভাবেই কেবলামূখী না হওয়া।

৮। যৌনমিলনের আগে সঙ্গিনীকে ভালভেবে উত্তেজিত করুন। সংগম শুরু করার পূর্বে শৃঙ্গার (চুম্বন, স্তন মর্দন ইত্যাদি) করবে। এতে নারীকে দ্রুত ও পরিপূর্ন যৌন তৃপ্তি দেওয়া যায় ।

৯। বীর্যপাতের সাথে সাথে উঠে পরবেন না, বরং স্ত্রীর বীর্যপাত হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করবে।

১০। মনে রাখবেন স্বামী-স্ত্রী উভয়ই একেবারে উলঙ্গ হবে না। গায়ে কিছু কাপর রাখুন ।

১১। বীর্যপাতের সময় মনে মনে নির্ধারিত দোয়া পড়বে। কেননা যদি সে সহবাসে সন্তান জন্ম নেয় তাহলে সে শয়তানের প্রভাব মুক্ত হবে।

১২। নিয়ত ঠিক করুন। হযরত আলী (রা.) তাঁর অসিয়ত নামায় লিখেছেন যে, সহবাসের ইচ্ছে হলে এই নিয়তে সহবাস করতে হবে যে, আমি ব্যভিচার থেকে দূরে থাকবো। আমার মন এদিক ওদিক ছুটে বেড়াবেনা আর জন্ম নেবে নেককার ও ভালো সন্তান। এই নিয়তে সহবাস করলে তাতে সওয়াব তো হবেই সাথে সাথে উদ্যেশ্যও পূরণ হবে, ইনশাআল্লাহ। আল্লাহ তাআলা আমাদের সবাইকে বুঝার এবং আমল করার তৌফিক দান করুন।

Updated: December 29, 2015 — 6:03 pm
bangladeshi women's lifestyle © 2015-2016, ই-মেইলঃ bdnari.com@gmail.com Serverdokan TEAM