প্রেমিকার যে বিষয়গুলোতে কখনই রাগ করা ঠিক নয়!

bbdসম্পর্কে ফাঁটল ধরার অন্যতম কারণ মতের অমিল। মতে মিল না হলেই মন কষাকষি শুরু। কেউ কারও সঙ্গে মানিয়ে চলতে নারাজ। ফলে বিচ্ছেদ। তবে, প্রেমিক-প্রেমিকার মধ্যে সামঞ্জস্য থাকলে ব্যাপারটা সহজেই মিটে যায়। তাই সম্পর্ক মধুর করে তুলতে প্রেমিকার কয়েকটি ব্যাপার মেনে নিতেই হবে প্রেমিককে। তবেই প্রেমিকা প্রেমিকের মনমর্জিতে সায় দেবে। সে জন্য জেনে নিন প্রেমিকার যে বিষয়গুলোতে কখনই রাগ করা ঠিক নয়।

* বিয়ে নিয়ে চাপাচাপি : অধিকাংশ পুরুষই প্রেম করার সময় মুহূর্তবাদী হয়ে যায়। খুব কম পুরুষ ভবিষ্যতের চিন্তা করে। কিন্তু মেয়েদের ক্ষেত্রে ব্যাপারটা একেবারেই উলটো। তারা প্রথম থেকেই প্রেমটাকে সিরিয়াসলি নিয়ে এগোয়। ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা করে। এর মূল কারণ মেয়েরা চায় নিরাপত্তা। এটাই স্বাভাবিক। যে কারণে সম্পর্কে দ্বিচারিতা করার প্রবণতা তাদের কম। তাই প্রেমিকা যদি বারংবার বিয়ের জন্য জোরাজুরি করে তিতিবিরক্ত হবেন না। ঠান্ডা মাথায় ব্যাপারটা মেনে নিন। প্রেমিকাকে দেওয়া প্রতিশ্রুতি পালন করুন। আর আপনি যদি সম্পর্কটায় সিরিয়াস না হন, বিয়ের করার কোনও পরিকল্পনাই যদি না থাকে, আগে থেকেই সম্পর্কটা থেকে বেরিয়ে আসুন। প্রেমিকাকেও সেটা জানিয়ে দিন।

*অতিরিক্ত প্রেম প্রেম ভাব : ছোটখাট ব্যাপারে অভিমান। অল্পেই মন খারাপ। কথা বন্ধ করে ফুপিয়ে কান্নাকাটি। একেবারেই বিরক্তি প্রকাশ করবেন না। একজন পুরুষের চেয়ে একজন নারী অনেকবেশি আবেগপ্রবণ। তাই তাদের আবেগের বহিঃপ্রকাশও অতিরিক্ত বেশি। কষ্ট পেয়ে সে যদি বাক্যালাপ বন্ধ করে, এটা ভাবার কারণ নেই, যে সে সম্পর্ক চাইছে না। বরং তার উলটো। সে চাইছে প্রেমিকের মনোযোগ। একটু মান, একটু অভিমান, এর নামই তো নারী। হোক না বাড়াবাড়ি। তাতে প্রেম তো কমছে না। তাই মেনে নিন। শ্রী রাধিকার মানভঞ্জন করুন। দেখবেন, দ্বিগুণ ভালোবাসা ফিরে এসেছে।

* অঙ্গীকার পালন : ছেলেদের স্বভাবে কমিটমেন্ট ব্যাপারটা কমই থাকে। অন্যদিকে কমিটমেন্ট না থাকলে কোনও মেয়েই সম্পর্কে জড়াতে চায় না। এর অন্যথাও মেয়েরা মেনে নিতে পারে না। ফলে সম্পর্কে জড়ালে প্রেমিকার প্রতি অঙ্গীকারবদ্ধ থাকুন। মুখে এককথা বলে অন্যরকম আচরণ করার দিন এখন চলে গিয়েছে। যে মেয়েকে প্রেমিকারূপে পেতে এককালে পরিশ্রম করেছিলেন৷ সেই প্রেমিকা কিন্তু একনিমেষে প্রত্যাখ্যান করতে পারে প্রেমে গাফিলতি দেখলে। তাই সাবধান। প্রমিস করলে সেটা পূরণ করতেই হবে আপনাকে!

[ আপনার জীবনে প্রয়োজনীয় নানান সব বিষয়গুলো পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন]

Updated: March 22, 2016 — 9:00 am
bangladeshi women's lifestyle © 2015-2016, ই-মেইলঃ bdnari.com@gmail.com Serverdokan TEAM