আপনি জানেন কি ‘বিরিয়ানির’ উদ্ভাবন কোথায়?

bdna555486বাঙালির অনেক ভাললাগা বা বলা ভাল ভালবাসার মধ্যে অন্যতম হল বিরিয়ানি। বিরিয়ানি নাম শুনলে যেন নিজেকে ধরে রাখা যায় না। আর বিয়ে, ঈদ, নানান সামাজিক উৎসবগুলোতে তো মাস্ট। বিরিয়ানি না হলে চলেই না। তবে বিরিয়ানি নিয়ে যতই বড়াই করুন না কেন অনেকেই কিন্তু জাননে না বিরিয়ানির ইতিহাস।
                                            বৈশাখী সাজে পরিপূর্ণতা আনতে প্রয়োজনীয় অনুষঙ্গ
সবথেকে মজার বিষয় অনেকে ভাবেন বিরিয়ানি উদ্ভাবন বাঙালি হেঁশেলেই বুঝি। তবে যারা জানেন না বিরিয়ানির আদিম পরিচয় তাঁরা শুনলে মর্মাহত হতে পারেন যে বিরিয়ানি আবিষ্কারে বাঙালির কোনওভাবেই কোনও হাত ছিল না। তবে বিরিয়ানি মুঘলাই রসনা বলেই মূলত জনপ্রিয়। তবে বিরিয়ানির জন্ম ঠিক কোথায় তা নিয়ে এখনও দ্বিমত রয়েছে।

                                                 যেকারণে সমবয়সী বিয়ে ঠিক নয়!

উত্তর ভারতের ক্ষেত্রে দিল্লিতে যেমন বিরিয়ানি বলতে মুঘলাই রসনাই বোঝে। তেমন আবার লখনওতে বলা হয় বিরিয়ানি আসলে আওয়াধি হেঁশেলেই প্রথম তৈরি হয়েছিল। এদিকে আবার দক্ষিণ ভারতের ক্ষেত্রে বিরিয়ানি হায়দরাবাদী রন্ধনপ্রণালী। বিরিয়ানি রান্নার কোথা থেকে উদ্ধব হয়েছে তা নিয়ে খচখচানি থাকলেও বিরিয়ানি শব্দটি যে ফার্সি ভাষা তা নিয়ে কোনও দ্বিমত নেই। ফার্সি শব্দ ‘বিরিঞ্জ’ (যার অর্থ ভাত) থেকে বিরিয়ানি শব্দটি এসেছে। তবে অনেক ভাষা বিশেষজ্ঞের মতে বিরিয়ানি শব্দের জন্ম ‘বিরয়ান’ বা ‘বেরিয়ান’ (যার অর্থ ভাজা বা রোস্ট) থেকে।

                                            সকালে শারীরিক মিলনে আবদ্ধ হলে কি হয়?

বিভিন্ন প্রদেশে বিরিয়ানির প্রণালীতেও বৈচিত্র দেখা যায়। দম বিরিয়ানি, কচ্চি বিরিয়ানি, বম্বে বিরিয়ানি, হায়দরাবাদী বিরিয়ানি, লখনউ বিরিয়ানি আর অবশ্যই কলকাতা বিরিয়ানি। অন্যান্য বিরিয়ানি থেকে কলকাতা বিরিয়ানির সবচেয়ে বড় পার্থক্য ‘আলু’। কলকাতা বিরিয়ানিতে মাংসের সঙ্গে যে একটুকরো বড় আলু দেওয়া হয় তা অন্য কোনও বিরিয়ানিতে থাকে না।

[ আপনার জীবনে প্রয়োজনীয় নানান সব বিষয়গুলো পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন] 

আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিতে এইখানে ক্লিক করুন

Updated: April 10, 2016 — 4:00 pm
bangladeshi women's lifestyle © 2015-2016, ই-মেইলঃ bdnari.com@gmail.com Serverdokan TEAM