জেনে নিন সঙ্গম নিয়ে মিথ আর মিথ্যার তফাদ!

bdna99998877774

যৌনতাই বোধহয় এমন এক বিষয়, যা নিয়ে বিশ্বে চর্চা সবচেয়ে বেশি। ৮ থেকে ৮০, নারী থেকে পুরুষ, ‘চর্চিত চর্বনের’ একটাই টপিক, ‘সেক্স’। আর যে বিষয়ে চর্চা বেশি সেবিষয়ে সাধারণভাবেই মিথও অনেক। ‘এমনটাই ভাবা হয়’, ‘এমনটাই হয়’, ‘এমনটাই হয়ে আসছে’, এই সব একরোখা বক্তব্যের মিথ বিংশ শতকে ভেঙে যাচ্ছে। পরিসংখ্যান দেখলে দেখা যাচ্ছে ‘যৌনতা ও পুরুষের দূরত্ব আর নারীর নৈকট্য প্রকট’।

পরিসংখ্যানে চোখ বোলান-

মিথ ১ : নারীরা মনে করেন, যৌনতার ক্ষেত্রে প্রেম সব থেকে জরুরি।

# বাস্তবটা ঠিক উল্টো। অধিকাংশ পুরুষ এমনটাই মনে করেন। যৌনতায় প্রেমের দরকার, এমনটা মনে করেন মাত্র ২২.৯% নারী। পুরুষের ক্ষেত্রে সেটা ৩২.১%।

মিথ ২ : পুরুষরা মনে করেন, সেক্স একটা সম্পর্কে সবথেকে জরুরি।  

# বাস্তব ছবিটা একটু আলাদা। সম্পর্কে সেক্সটা সবথেকে গুরুত্ব পায় মহিলাদের কাছে। ৪০% নারীরা মনে করেন সেক্সটাই শেষ কথা। পুরুষদের ক্ষেত্রে এমনটা মনে করেন মাত্র ৩৬.৩%।

মিথ ৩ : নারীর বক্ষ এবং নারীর বসনের বোতাম এই দুই সবথেকে আকর্ষণ করে পুরুষকে।

# এই মিথ বিংশ শতকে একেবারে ভেঙে পড়েছে।  মাত্র ১০% পুরুষ নারীর বসনের বোতামে আকৃষ্ট হন। ২১.২% পুরুষ নারীর বক্ষে আকৃষ্ট হন। ২৪ % পুরুষের কাছে নারীর আকর্ষণ মুখ, চোখ আর চুলেই খুঁজে পান।

মিথ ৪ : পুরুষরা সেক্স নিয়ে সবথেকে আলোচনা করেন।

# বাস্তবটা ঠিক উল্টো। মাত্র ২০.৫% পুরুষ তাঁদের যৌন সম্পর্ক নিয়ে আলোচনা করেন। বাকিরা একেবারেই পছন্দ করেন না। মহিলারা এই ক্ষেত্রেও পুরুষদের হার মানিয়েছে।

[ বিঃ দ্রঃ প্রতিদিন মজার মজার রান্নাকরার অসাধারন সব রেসিপি এবং রুপ লাবণ্য টিপস আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিন!

আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিতে এইখানে ক্লিক করুন

Updated: May 4, 2016 — 5:13 pm
bangladeshi women's lifestyle © 2015-2016, ই-মেইলঃ bdnari.com@gmail.com Serverdokan TEAM