ব্রেকআপ এর কষ্ট ভুলতে পাচ্ছেন না? জেনে নিন উপায়

bdnari8836627সম্পর্ক গড়া ও ভেঙে যাওয়া জীবনের স্বাভাবিক বিষয়। আপনি যদি সম্পর্ক বিচ্ছেদের যন্ত্রণায় পড়েন তাহলে এ বিষয়টি অবশ্যই মাথায় রাখা উচিত যে, সম্পর্ক ভাঙার কষ্ট যতই হোক না কেন, এটি এক সময় লাঘব হবেই।এ লেখায় দেওয়া হলো কয়েকটি পরামর্শ, যা বিচ্ছেদের যন্ত্রণাকে লাঘব করবে। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে হাফিংটন পোস্ট।

* গান শোনা : অনেকেরই দুঃখের গান শোনায় মানসিক যন্ত্রণা থেকে মুক্তি মেলে। আর এ যন্ত্রণা থেকে মুক্তির জন্য গান শোনা হতে পারে একটি দারুণ উপায়। বিভিন্ন গবেষণাতেও বিষয়টি প্রমাণিত হয়েছে।

* মানিয়ে নিন : সম্পর্ক ভেঙে গেলে আপনার অবশ্যই কিছু না কিছু ক্ষতি হবে। এ ক্ষতিকে স্বীকার করে নিন। স্বাভাবিকভাবেই এ ক্ষতির কারণে মন খারাপ হবে। তবে এটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। আপনার যদি ডাকাতি হয়ে যায় তাহলে মনের অবস্থা যেমন হবে, এটিও অনেকটা তাই। আর তাই বিষয়টি মেনে নিতে হবে।

* বন্ধুর সঙ্গে সময় কাটান : স্মৃতি ভুলতে নিজের কিছু সময় অন্য কাজে ঢালুন। যেমন- আইসক্রিম পার্লারে যান, বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে যান অথবা নতুন কোনো শখ তৈরি করুন।

* ইতিবাচক দৃষ্টিতে দেখুন : সম্পর্ক বিচ্ছেদেরও কিছু উপকারিতা রয়েছে। ইতিবাচক এ বিষয়গুলো নিয়ে চিন্তা করুন। সম্পর্ক ভাঙার যাতনাকে ইতিবাচক কোনো দিকে নিয়ে যান। এই পরিস্থিতিকে দূরে কোথাও থেকে ঘুরে আসুন। এর চেয়ে ভালো কাজ আর হয় না। অথবা অন্যদিকে মন দিতে প্রয়োজনীয় কোনো কোর্সে ভর্তি হয়ে যান। হতাশায় ডুবে না গিয়ে এমন কিছু করুন যাতে করে নিরাশা আপনার ওপর ভর না করতে পারে।

* নতুন সম্পর্ক তৈরির কথা ভাবুন : নতুনভাবে জীবন শুরু করুন এবং অতীতের সব কিছু বাদ দিন। পুরনো যন্ত্রণা শেষ করুন নতুন সম্পর্ক তৈরির কথা ভাবুন।

* নতুন কিছু করুন : আপনার মন শান্ত হওয়ার জন্য সময় নিন। নতুন কোনো শখের কাজ শুরু করুন। এতে সময় যেমন কাটবে তেমন মনও ঠিক হওয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হবে। সম্পর্ক ভেঙে গেলেই নতুন কাউকে খুঁজে নেওয়ার জন্য তাড়াহুড়ো শুরু করবেন না। তার বদলে কিছুটা সময় নিন। মন শান্ত হওয়ার জন্য অপেক্ষা।

* সময় নিন : সময় সবকিছু ভুলিয়ে দেয়। সময় বয়ে যাওয়ার পাশাপাশি বহু বিষয় মানুষ এমনিতেই ভুলে যায়। তাই সম্পর্ক ভেঙে গেলে এ কথাটি মাথায় রাখতে হবে যে, কিছু সময় কেটে গেলে বিষয়টি অনেকাংশে স্বাভাবিক হয়ে আসবে। সময় পার হলে বিচ্ছেদের যন্ত্রণা যেমন দূর হবে তেমন মনও স্বাভাবিক হবে। আর মন স্বাভাবিক হওয়ার আগ পর্যন্ত নিজেকে কিছুটা সময় দিন। মনে রাখতে হবে, কিছুদিন পরে এ অবস্থা থাকবে না।

[ বিঃ দ্রঃ প্রতিদিন মজার মজার রান্নাকরার অসাধারন সব রেসিপি এবং রুপ লাবণ্য টিপস আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে আমাদের পেইজে লাইক দিন!

আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিতে এইখানে ক্লিক করুন

Updated: August 8, 2016 — 5:09 pm
bangladeshi women's lifestyle © 2015-2016, ই-মেইলঃ bdnari.com@gmail.com Serverdokan TEAM